Lakshadeep new Air-port News: ভারত সরকার লাক্ষাদ্বীপে একটি নতুন বিমানবন্দর তৈরি করতে যাচ্ছে, বিস্তারিত জানুন রিপোর্টে।

Lakshadeep New Air-Port News:- বর্তমান সময়ে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে প্রচুর সমালোচনা চলছে। আসলে এই সমালোচনা শুরু হয়েছে ভারতের লাক্ষাদ্বীপ (Lakshadeep) এবং মালদ্বীপকে (Maldives) নিয়ে। কিছুদিন আগেই প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী লাক্ষাদ্বীপ সফর করতে গিয়েছিলেন এবং সেখান থেকে তিনি তার অনেকগুলো ফটো সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেন। আর তিনি এটা শেয়ার করেন যাতে সবাই মালদ্বীপ না গিয়ে ভারতের লাক্ষাদ্বীপে যায়।

আসলে লাক্ষাদ্বীপ (Lakshadeep) ভারতেরই একটি অংশ এটি একটি খুব সুন্দর পর্যটন কেন্দ্র এখানে প্রতি বছর হাজার হাজার টুরিস্ট (Tourist) অনেক দূর থেকে আসেন। ভারতের লাক্ষাদ্বীপ(Lakshadeep), মালদ্বীপের (Maldives)মতোই দেখতে কিন্তু মালদ্বীপের মতো তেমন সুবিধা বর্তমানে এই লাক্ষাদ্বীপে নেই বললেই চলে।

Lakshadeep new Air-port News

ভারত সরকার ইতিমধ্যে লাক্ষাদ্বীপ ভ্রমণ (Lakshadeep Travel) করে আসলেন এবং তিনি তার ফটো সোশ্যাল মিডিয়া শেয়ারের পাশাপাশি তিনি এই লাক্ষাদ্বীপ ভ্রমণের কথা দেশবাসীর উদ্দেশ্যে জানান যাতে মানুষেরা মালদ্বীপ না গিয়ে ভারতের লাক্ষাদ্বীপে ভ্রমণ করতে যান। ভারত সরকার চায় লাক্ষাদ্বীপকে বিশ্বের সেরা পর্যটন (Lakshadweep is the Best Tourism in the World) কেন্দ্র তে পরিণত করতে। বর্তমানের লাক্ষা দ্বীপে একটি মাত্র বিমানবন্দর (Lakshadeep Airport) রয়েছে যার কারণে অনেক লোক ফ্লাইটে এখানে পৌঁছাতে পারে না। এই কারণে এখন ভারত সরকার চাইছে লাক্ষা দ্বীপে একটি নতুন বিমানবন্দর তৈরি করবে যাতে অনেক মানুষ এখানটায় পৌঁছাতে পারে। বন্ধুরা আজকে এই পোস্টে আমরা লক্ষা দ্বীপের নতুন বিমানবন্দর তৈরি করা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ খবর গুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করবো।

লাক্ষাদ্বীপে তৈরি হতে যাচ্ছে নতুন বিমানবন্দর।

ইতিমধ্যে ভারত সরকারের তরফ থেকে জানা গিয়েছে খুব শীঘ্রই লাক্ষা দ্বীপে মিনিকয় দ্বীপে একটি নতুন বিমানবন্দর (Airport) তৈরির কাজ শুরু হবে। আমরা সকলেই জানি লাক্ষাদ্বীপ ৩৬ টি দ্বীপের একটি গ্রুপ যেখানে মাত্র একটি অর্থাৎ আগাতি দ্বীপে একটি মাত্র বিমানবন্দর রয়েছে। এছাড়াও এই বিমানবন্দরে সমস্ত ধরনের ফ্লাইটের সুবিধা নেই বললেই চলে।

তাই ভালো সরকারের তরফ থেকে এটা জানা গিয়েছে যে ভারত সরকার ইতিমধ্যেই এই দ্বীপে একটি নতুন বিমানবন্দর (Lakshadeep New Airport News) তৈরি করতে চলেছে। এই বিমানবন্দরটির উদ্দেশ্য সাধারণ নাগরিকরা ফ্লাইট এর সুবিধা পাবে। এবং তারা এই দ্বীপে ভ্রমণ করতে পারবে। এছাড়াও এই বিমানবন্দরে ফাইটারজেট ও সামরিক বিমান খুব সহজেই ল্যান্ড করতে পারবে।

আমরা আপনাদের জানিয়ে রাখি যে ইতিমধ্যে মিনিকয় দ্বীপের মধ্যে একটি বিমানবন্দর তৈরি হওয়ার কথা ছিল কিন্তু সেটা শুধুমাত্র যার বিমান ও সামরিক বাহিনীর জন্য তৈরি করার কথা ছিল কিন্তু বর্তমানে টুরিস্ট দের সুবিধার্থে আর ভারতের লাক্ষাদ্বীপ (Lakshadeep) এর উন্নতির কথা মাথায় রেখে এখন ভারত সরকার শুধুমাত্র জেট বিমান ও সামরিক বাহিনীর জন্য নয় এখন সাধারণ নাগরিকদের জন্য বিমানবন্দর তৈরি করতে চাচ্ছে এতে করে সাধারণ মানুষেরা যারা দ্বীপে ভ্রমণ করতে চান তারা এই লাক্ষা দ্বীপে ভ্রমণ করতে পারবেন খুব সহজেই।

মালদ্বীপের কাছে এটি একটি বড় সমস্যা হয়ে দারাবে।

খুব দ্রুতই যদি লাক্ষা দ্বীপে দ্বিতীয় বিমানবন্দর তৈরি (Lakshadeep new Air-port News) করা হয় তবে মালদ্বীপ (Maldives) এর অনেকটাই ক্ষতি হবে বলে আশা করা হচ্ছে। কেননা আমরা সকলেই জানি, মালদ্বীপ এর অর্থনীতির নির্ভর করে তার টুরিস্টদের ওপর। যদি Lakshadweep নতুন একটি বিমানবন্দর তৈরি করা হয় তবে সেক্ষেত্রে ভারতীয়রা বেশিরভাগরাই মালদ্বীপকে টাটা বলে Lakshadweep Tour করতে আসবে এর ফলে মালদ্বীপের অনেক লস হয়ে যাবে।

বর্তমানে ভারতের বেশিরভাগ মানুষ মালদ্বীপকে (Maldives) বয়কট করেছে কারণ সম্প্রতি মালদ্বীপের অনেক নেতা আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী মোদিকে (India PM Modi) নিয়ে অনেক খিল্লি করেছেন। আর এটা জানা গেছে যে মালদ্বীপের তিনজন মন্ত্রী কে ইতিমধ্যে Maldives Govt সাসপেন করে দেয়া হয়েছে, ভারতের সম্পর্কে কথা বলার কারনে।

ভারত সরকার যদি ইতিমধ্যেই লাক্ষাদ্বীপের (Lakshadeep new Air-port News) কথা চিন্তা করে এর মধ্যে সমস্ত ধরনের সুযোগ সুবিধা দেওয়া শুরু করেন তবে সে ক্ষেত্রে বেশিরভাগ মানুষ লাক্ষাদ্বীপ যেতে পছন্দ করবে কারণ মালদ্বীপ এবং লাক্ষা দ্বীপের মধ্যে খুব বেশি পার্থক্য নেই দুটো প্রায় একই রকম এই কারণে খুব শীঘ্রই লাক্ষা দ্বীপে নতুন দ্বিতীয় বিমানবন্দর তৈরি হতে যাচ্ছে এর ফলে মালদ্বীপের টুরিস্ট অনেকটাই কমে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বিমানবন্দরটি পরিচালনা করবে ভারতীয় বিমান বাহিনী।

আপনাদের জানিয়ে রাখি যে বর্তমানে শুধুমাত্র ভারতীয় নৌ বাহিনী লাক্ষাদ্বীপের (Lakshadweep) ওপর নজর রাখে কিন্তু যখন এই নতুন বিমানবন্দরটি তৈরি হয়ে যাবে তখন এটি ভারতীয় সেনা দ্বারা নিয়ন্ত্রণ (Lakshadweep New Airport) করা হবে। অর্থাৎ নজর দেওয়া হবে। এরফলে অন্যান্য দ্বীপ থেকে আসা ডাকাতদের হাত থেকে লাক্ষা দ্বীপকে রক্ষা করা যাবে এবং এর ফলে পর্যটনের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।

বন্ধুরা আশা করি আজকের এই পোষ্টটি থেকে আপনারা Lakshadeep New Air-Port News সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য জানতে পারলেন। আপনারাও যদি লাক্ষাদ্বীপ ঘুরতে যেতে চান তবে আপনারা এই খবরটি আপনাদের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে তাদের জানিয়ে দিন এবং সকলে মিলে সেখানটায় ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যান করুন।

2 thoughts on “Lakshadeep new Air-port News: ভারত সরকার লাক্ষাদ্বীপে একটি নতুন বিমানবন্দর তৈরি করতে যাচ্ছে, বিস্তারিত জানুন রিপোর্টে।”

Leave a Comment